বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

দেশবাসী বিতর্কিত কোন ব্যক্তিকে নির্বাচন কমিশনে মেনে নিবে না : পীর সাহেব চরমোনাই

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) বলেছেন, নতুন নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে রাষ্ট্রপতির গঠিত সার্চ কমিটিকে স্বাধীন ও নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে হবে। সরকারের কুটকৌশল বাস্তবায়নে তারা যদি বিতর্কিত ব্যক্তিদের নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠনে কাজ করে তাহলে সরকারের মতো সার্চ কমিটির সদস্যরাও গণধিকৃত হবেন। তিনি মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে আহবান জানিয়ে বলেন, আপনি দেশের সর্বোচ্চ ব্যক্তি হিসেবে সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ একটি নির্বাচন কমিশন গঠন করুন, জাতি আপনাকে আজীবন স্মরণে রাখবে।

তিনি বলেন, বিগত নির্বাচন কমিশন একের পর এক অস্বচ্ছ ও বিতর্কিত নির্বাচন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচনব্যবস্থাকে নির্বাসনে পাঠিয়েছে। ভবিষ্যতে একই অবস্থা বহাল থাকলে দেশে রাজনীতি বলে কিছু থাকবে না।

বুধবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ইসলামী যুব আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আয়োজিত “সদস্য সংগ্রহ পক্ষ” উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত দাওয়াতী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।

নগর আহবায়ক মোঃ গিয়াস উদ্দিন খালিদের সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ মহানগর সভাপতি মাওলানা মাসুম বিল্লাহ।

পীর সাহেব চরমোনাই সুপ্রীমকোর্ট প্রাঙ্গণে নারীদেবীর মুর্তি অপসারনের দাবী জানিয়ে বলেন, ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ক্ষোভ ক্রমশঃ বাড়ছেই। সরকার যদি এ ব্যাপারে ত্বরিৎ পদক্ষেপ না নেয় তবে জনগণ রাজপথে নামতে বাধ্য হবে।

তিনি যুবকদেরকে দেশ গঠনে আত্মনিয়োগ করতে এবং আদর্শ মানুষ তৈরীর জন্য দ্বীন ইসলামের দাওয়াত দিতে সকলের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, যুবকরাই সমাজ পরিবর্তনের হাতিয়ার, সমাজের সকল অসঙ্গতি দূর করতে তাই যুবকদের এগিয়ে আসতে হবে।

মাওলানা নেছার উদ্দিন সত্যান্বেষী যুবকদেরকে দেশ ও ইসলামের স্বার্থরক্ষায় ইসলামী

যুব আন্দোলনের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।