বুধবার, ২২ মার্চ, ২০১৭

ইসলাম, দেশ ও মানবতা রক্ষায় ইসলামী শক্তির বৃহত্তর ঐক্য প্রয়োজন : মুফতী ফয়জুল করীম

জামালপুর সংবাদদাতা : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ ফয়জুল করীম (সাহেবজাদা ও খলিফা, শায়েখ চরমোনাই রহ.) বলেছেন, ইসলাম, দেশ, মসজিদ ও মাদরাসা রক্ষায় ইসলামী শক্তির বৃহত্তর ঐক্য প্রয়োজন। আর এই ঐক্য হতে হবে ইসলামী আদর্শের ভিত্তিতে। বার বার ক্ষমতার পট পরিবর্তনে কোন ফায়দা নেই। শুধু নেতা নয়, নীতির পরিবর্তন প্রয়োজন সবচেয়ে বেশি। আর এজন্য ওলামা-মাশায়েখদের আদর্শিক ঐক্য সবচেয়ে বেশি জরুরি। যাদের কোনো নীতি নেই, যারা ওলামাদের ব্যবহার করে ঠিক, কিন্তু কোনো মুল্যায়ন করে না, যারা ইসলামকে মনে প্রাণে স্বীকার করে না, তাদের পিছে অন্তত ওলামায়ে হাক্কানীদেরকে মানায় না।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে এ পর্যন্ত অনেক নেতা ও দফার পরিবর্তন হয়েছে। হতাশাগ্রস্ত জনতার ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি। এভাবে কিয়ামত পর্যন্ত নেতার পরিবর্তন দ্বারা শান্তি ও মুক্তি আসবে না। শান্তি ও মুক্তি পেতে হলে নীতির পরিবর্তন প্রয়োজন। জাতি আজ পরিবর্তন চায়। গতানুগতিক পদ্ধতি দ্বারা নেতানেত্রীর পরিবর্তন হবে ঠিকই কিন্তু দেশ, জাতি ও ইসলাম কি পেলো তা নিয়ে ভাবতে হবে। আদর্শচ্যুত, লক্ষ্যহীন ও সাংগঠনিক ভীত মজবুত করতে না পেরে এক শ্রেণীর লোক ইসলামের আদর্শ জলাঞ্জলি দিয়ে নগদ ফায়দার পিছনে ঘুরছে। আর এ ধরণের মানুষই ইসলামী আন্দোলনকে বিভিন্নভাবে কটাক্ষ করে। আর তারাই হযরত হাফেজ্জী হুজুর রহ. হোসাইন আহমদ মাদানী রহ. ও শায়েখ চরমোনাই রহ.-কে ভারতের দালাল ও আওয়ামী লীগ বলে গালিগালাজ করতে একটুও কসুর করেনি। কিন্তু শত বাধা, অপপ্রচার মাড়িয়ে ইসলামী আন্দোলন ইসলাম প্রতিষ্ঠার ধারাবাহিকতায় এগিয়ে যাবেই, ইনশাআল্লাহ। ইসলামের ফায়দা যেখানে নেই, সেখানে ইসলামী আন্দোলনও নেই।

বুধবার (২২ মার্চ) বাদ জোহর জামালপুরের সদর চন্দ্রা বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন মাঠে  বিশাল ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।