শনিবার, ২৫ মার্চ, ২০১৭

নীতি ও আদর্শবান তরুণ সমাজ গড়তে ইশা ছাত্র আন্দোলনের বিকল্প নাই: আশরাফ আলী সোহান

স্টাফ রিপোর্টার : কিশোরগঞ্জ বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকা ও সোস্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে, সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্র রাকিবুল ইসলাম রিয়াদকে তার বন্ধুরা ধরে নিয়ে গিয়ে এলোপাথারি লাকড়ি দিয়ে মাথায় আঘাত করে, এরপর ঢাকা মেডিকেলে নেওয়ার পথে রিয়াদের মৃত্যু হয়। আমরা অল্প কয়েক দিন আগেও দেখেছি প্রান্ত নামের আরেকজন ছেলেকে বন্ধুরা মেরে রেল লাইনে ফেলে রাখে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সহ-দফতর সম্পাদক, সংগ্রামী নেতা আশরাফ আলী সোহান এক বিবৃতিতে বলেন, আজ আমাদের তরুণ সমাজ চরম অবক্ষয়ের দাড়প্রান্তে চলে আসছে। পত্রিকার হেড লাইন এখন “বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন” লেখাতে ভরে যাচ্ছে। মাদকের নেশায় ১০ম শ্রেণির তরুণ বালক মা-বাবা মারার হুমকি দিচ্ছে। আজ সমাজে অভিভাবক, পিতামাতা সবাই তার সন্তানকে নিয়ে উদ্বিগ্ন। আমি বলতে চাই আপনি আপনার সন্তানকে কি স্কুল, কলেজ, ভার্সিটির সবচেয়ে ভদ্র মেধাবী ছেলে হিসেবে দেখতে চান? যে ছেলে কিনা পিতামাতার কথা মেনে চলবে, খোদার বিধান পালন করবে? তবে অবশ্যই আপনার সন্তানকে ইশা ছাত্র আন্দোলনে দিন।

আজ সারা দেশে ইশা ছাত্র আন্দোলনের ছেলেরা সাহাবা আজমাঈনদের রোল মডেল হিসেবে পরিণত হচ্ছে। সে স্কুল, মাদ্রাসা বা কলেজের ছাত্র হোক, তার গায়ে সুন্নতী পোষাক দেখা যায়। পিতামাতার অন্যতম ভদ্র ছেলে হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে। মাদকের বিষাক্ত ছোবল কখনোই তাকে গ্রাস করে না। তাই সম্মানিত অভিভাকদের বলবো, আজ আমাদের প্রাণের শহর কিশোরগঞ্জের দশম শ্রেণির ছাত্র রাকিবুল ইসলাম রিয়াদ তার বন্ধুদের হাতে খুন হয়েছে, কাল আপনার ছেলে হবে না তার নিশ্চয়তা কি? তাই আসুন আমাদের সন্তানদের ভাল সঙ্গীদের সাথে জড়িয়ে দেই, রুহানিয়াত ও জিহাদের সম্মন্নিত প্রয়াস ইশা ছাত্র আন্দোলনের ফরম পূরণ করিয়ে দেই। তবেই আপনার সন্তান নৈতিকতা সম্পন্ন একজন মানুষ হিসেবে সমাজে বড় হয়ে উঠবে ইনশাআল্লাহ।