বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ, ২০১৭

গ্রীক মূর্তি অপসারণের মাধ্যমে মুসলিম উম্মাহকে শিরকমুক্ত করতে হবে: ইসলামী আন্দোলন ঢাকা জেলা

আইএবি নিউজ: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা জেলা সভাপতি আলহাজ্ব সৈয়দ আলী মোস্তফা বলেছেন, বাংলাদেশের গণ-মানুষের আস্থার প্রতীক সর্বোচ্চ বিচারালয় সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে গ্রীক দেবি থেমিসের মূর্তি স্থাপন করে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদেরকে মুশরিক বানাতে চায়। দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমান জনগোষ্ঠীর অন্তরে চরমভাবে আঘাতকারী এই মূর্তি সরাতেই হবে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা জেলা শাখার নির্বাহী পরিষদের এক সভায় তিনি একথা বলেন।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, ন্যায় বিচারের প্রতীক মাটি বা ধাতবের তৈরি মূর্তি হতে পারে না। কারণ মূর্তির বাক শক্তি ও বোধ শক্তি নেই। সৃষ্টিকর্তা ও তার নাযিল করা কুরআন হচ্ছে ন্যায় বিচারের প্রতীক। আল্লাহ ন্যায় বিচারের সকল পদ্ধতি পবিত্র কুরআনে লিপিবদ্ধ করেছেন। আর আল্লাহর রাসূল সা. তা পরিপূর্ণ বাস্তবায়ন করেছেন। এজন্যই তিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ন্যায় বিচারকরূপে প্রতিষ্ঠিত। অবিলম্বে মূর্তি ভেঙ্গে ফেলতে হবে। অন্যথায় ঈমানদার জনতা জাতিকে শিরক থেকে বাঁচাতে মূর্তি ভেঙ্গে ফেলতে বাধ্য হবে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, জাতীয় ঈদগাহ’র পাশে মূর্তি স্থাপন করায় দেশব্যাপী মুসলিম জনতা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠছে।  সর্বোচ্চ আদালতের অভিভাবক হিসেবে প্রধান বিচারপতি কিছুতেই এর দায় এড়াতে পারেন না। তারা অনতিবিলম্বে মূর্তি অপসারণ দাবি করে বলেন, অন্যথায় দেশে গণআন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

সেক্রেটারী আলহাজ্ব শাহাদাত হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা সহ-সভাপতি আলহাজ্ব হানিফ মিয়া, আলহাজ্ব হাফেজ জয়নুল আবেদীন, আব্দুর রাজ্জাক বেপারী, জয়েণ্ট সেক্রেটারী অধ্যাপক ডা. কামরুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক, মুহা. হাসমত আলী, মাওলানা নূর হোসাইন, মুফতী আব্দুল করীম, মাওলানা ইলিয়াস হোসাইন, মাওলানা জহিরুল ইসলাম, মুফতী ইজহারুল ইসলাম, হাজী আব্দুল মালেক, ডা. দেলোয়ার হোসেন, টি এম মাহফুজুর রহমান প্রমুখ।

 

কৃতজ্ঞতা : ইনসাফ