সোমবার, ২৭ মার্চ, ২০১৭

বাইরে থাকলে গুম হয়, ঘরে থাকলে খুন হয়: পীর সাহেব চরমোনাই

পাথরঘাটা (বরগুনা) সংবাদদাতা: দেশে আজ কারো নিরাপত্তা নেই, বাইরে থাকলে গুম হয়, আর ঘরে থাকলে খুন হয়। চরমোনাই মাহফিল শেষে আপনাদের এলাকারই সন্তান মো: হানিফ ঢাকায় যাওয়ার পথে আটকের পর নিহত হয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গুম-খুনের সাথে জড়িত হচ্ছে। রক্ষক যদি ভক্ষক হয় তাহলে মানুষের নিরাপত্তা কোথায়?

গত শুক্রবার বিকেলে পাথরঘাটা খাসকাচারি মাঠে ইসলামী আন্দোলন আয়োজিত এক জনসভায় বক্তৃতায় এ কথা বলেন মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই। মাস্টার রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে জনসভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সাবেক এমপি ও ইসলামী আন্দোলনের বরগুনা জেলার সহ-সভাপতি গোলাম সরোয়ার হিরু, ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম কবির, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের বরগুনা জেলা সভাপতি গোলাম হায়দার স্বপন, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন পাথরঘাটা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমান প্রমুখ।

পীর সাহেব আরো বলেন, স্বাধীনতা পর ৪৬ বছর ধরে যারা দেশ পরিচালনা করছেন তারা বিশ্বদরবারে চৌর্যবৃত্তিতে (দুর্নীতিতে) বাংলাদেশকে পাঁচবার প্রথম বানিয়েছেন। তিনি বলেন, দুনিয়ার কোনো আদালতের সামনে মূর্তি নেই, অথচ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে ন্যায়ের প্রতীক হিসেবে সুপ্রিমকোর্টের সামনে গ্রিক দেবীর মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে। অবিলম্বে এ মূর্তি অপসারণের জন্য তিনি সরকারের কাছে দাবি জানান। তিনি আরো বলেন, হিন্দুসহ অমুসলিমদের একমাত্র গ্রান্টি হচ্ছে ইসলাম। দেশে ইসলাম প্রতিষ্ঠিত থাকলেই তারা নিরাপত্তাসহ বাস করতে পারবেন। আগামী নির্বাচনে হাত-পাখা প্রতীকে ভোট দেয়ার জন্য উপস্থিত জনগণের প্রতি তিনি আহ্বান জানান।