বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে মূর্তি স্থাপন ইসলামের প্রতি চরম আঘাত: পীর সাহেব চরমোনাই

আইএবি নিউজ, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর অামীর মুফতী সৈয়দ মোঃ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম দেশ ও ৯২ ভাগ মুসলমানের  বাংলাদেশে জাতীয় ঈদগাহ চত্বরে গ্রীক দেবীর মূর্তি স্থাপন মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতি ও ইসলামী সংস্কৃতির উপর চরম আঘাত। এদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমান এমন ঈমান বিধ্বংসী ও ইসলাম বিদ্বেষী কর্মকাণ্ড কোন অবস্থায় মেনে নিবে না। তাই অবিলম্বে সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে স্থাপিত মূর্তি অপসারণ করতে হবে। নচেৎ ইসলামপ্রিয় তৌহিদী জনতা মূর্তি উৎখাতে রাজপথে নামতে বাধ্য হবে।



আজ ১৫ ফেব্রুয়ারি'১৭ বুধবার ইসলামী আন্দোল বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার উদ্যোগে লক্ষ্মীপুর লিল্লাহ জামে মাসজিদ ময়দানে জেলা সভাপতি ক্যাপ্টেন অবঃ ইব্রাহীম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিশাল গণসমাবেশের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

গণসমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দীন, সহকারী মহাসচিব অালহাজ্ব অামিনুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরার সদস্য (চেয়ারম্যান) আল্লামা খালেদ সাইফুল্লাহ, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য মাও. দেলোয়ার হোসেন সাকী, ইশা ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সেক্রেটারি জেনারেল শেখ সাইফুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা সেক্রেটারী মাও. মহিউদ্দীন, মো. দেলোয়ার হোসেন, মো. ইউছুফ আল মাহমুদ, মো. জহিরুল ইসলাম, আ.হ.ম নোমান সিরাজী, ডাঃ নাছির আহমাদ, মো. মাহবুবুর রহমান, আবুল হাসেন, ছাত্রনেতা নোমান সিদ্দীকিসহ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ নেতৃবৃন্দ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দীন বলেন, দেশে যেভাবে ক্রমাগত খুন, ধর্ষণ, হত্যা, সন্ত্রাস, অপহরণ, দূর্নীতি, চাঁদাবাজী, জুলুম নির্যাতন ও বিজাতীয় অগ্রাসন চলছে তা থেকে দেশবাসীকে মুক্ত করতে পীর সাহেব চরমোনাই এর অাপোষহীন নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নামতে হবে, তবেই কাঙ্ক্ষিত মুক্তির আশা করা যায়।