মঙ্গলবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

ইশা ছাত্র আন্দোলন কিশোরগঞ্জ জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত

আইএবি নিউজ: ২০ ফেব্রুয়ারী’১৭ ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কিশোরগঞ্জ জেলা সম্মেলন আইএবি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। জেলা সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আল জামিয়াতুল ইমদাদিয়া কিশোরগঞ্জ এর সিনিয়র মুহাদ্দিস রঈসুল মুফাচ্ছিরীন, শাইখুল হাদিস আল্লামা শামছুল ইসলাম সাহেব, হাফেজ মাওলানা আলমগীর হোসাইন, সভাপতি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কিশোরগঞ্জ জেলা বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলে ইশা ছাত্র আন্দোলনের সাবেক সেক্রেটারী জেনারেল কেএম আনিছুজ্জামান খান, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইশা ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক নোমান আহমাদ। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, যে রাজনীতিতে দ্বীন নেই, সেই রাজনীতি রাজনীতিই নয় বরং দূর্নীতি। বামপন্থী, শাহাবাগীরা রাজনীতি ও ইসলামকে আলাদা করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। দেশবাসীকে সজাগ থাকতে হবে যে ধর্মহীন রাজনীতি শোষণের হাতিয়ার। তিনি ছাত্র রাজনীতির কর্মীদের উদ্দেশ্যে করে বলেন, ইসলামী রাজনীতির কর্মীরা রাতে তাহাজ্জুদ পড়বে আর দিনের আলোয় বাতিলের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করবে, মিছিল মিটিং এর মাধ্যমে প্রতিবাদ জানাবে। তিনি সরকার প্রশাসনকে হুশিয়ারি জানিয়ে বলেন, আলেম-ওলামাদের এ দেশে মূর্তি স্থাপন করে সরকার কি বুঝাতে চায়? হাজী ক্যাম্পের সামনে থেকে জনতা যেভাবে মূর্তি অপসারণ করেছিল, প্রয়োজনে আবারও সেই তৌহিদী জনতা ময়দানে নামবে।

সম্মেলনে এক পর্যায় বক্তব্য রাখেন হাফেজ মাওলানা আলমগীর হোসাইন। তিনি বক্তব্যে বলেন সংবিধানের ধারা মোতাবেক কুরআনের অনেক আয়াত বাতিল বলে গণ্য, আর সেই হিসেবে আমরা কোথায় অবস্থান করছি। তাই ছাত্রদের প্রতি আহবান থাকবে যুগে যুগে বিপ্লবের নেতৃত্ব দিয়ে এসেছে ছাত্ররা, তাই এদেশে ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠার দূর্বার আন্দোলনের জন্য চাই যোগ্য নেতৃত্ব।



সম্মেলনের প্রধান বক্তা নোমান আহমাদ ইশা ছাত্র আন্দোলন কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার ২০১৬ সেশনের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে ২০১৭ সেশনের কমিটিতে সভাপতি জোবায়ের আহমদ, সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবীর ও সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল্লাহ মাহবুবকে মনোনীত করে শপথ পাঠ করান।