বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে মূর্তি স্থাপনের মাধ্যমে আইন ও আদালতের প্রতি মানুষের আস্থা বিনষ্ট করা হচ্ছে: অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দিন

আইএবি নিউজ: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দিন বলেন, মূর্তি স্থাপনের মাধ্যমে আইন ও আদালতের প্রতি মানুষের আস্থা বিনষ্ট করা হচ্ছে। পরস্পর ধর্মীয় সৌহার্দ ও সম্প্রীতি নষ্ট করার পায়তারা চলছে। সুপ্রীমকোর্ট প্রাঙ্গণে গ্রীক দেবী ‘থেমিস’-এর মূর্তি স্থাপন করা হচ্ছে, আর একদল কুচক্রি মহল এই মূর্তিকে স্বাধীনতার চেতনার অংশ হিসেবে চালিয়ে দেয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত। তারা মূলত স্বাধীনতার চেতনাকে জলাঞ্জলি দিচ্ছে।

আজ ১৬ ফেব্রুয়ারি'১৭ (বৃহস্পতিবার) বিকেল ৩টায় রাজধানীর মিরপুরস্থ নগর কার্যালয় সংলগ্ন রোডে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন ঢাকা মহানগর পশ্চিমের নগর সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ইশা ছাত্র আন্দোলন ঢাকা মহানগর পশ্চিমের সভাপতি জি এম বায়েজীদ-এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ নূরুল ইসলামের সঞ্চালনায় নগর সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দিন। প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন ইশা ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শেখ ফজলুল করিম মারুফ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ। আরো বক্তব্য দেন ইশা ছাত্র আন্দোলনের সদ্য সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওঃ নুরুল ইসলাম আল-আমিন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তরের ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক মুফতি ফরিদুল ইসলাম, ইশা ছাত্র আন্দোলন ঢাকা মহানগর পশ্চিমের সাবেক সহ-সভাপতি ইঞ্জিঃ মোঃ গিয়াস উদ্দিন। এছাড়াও প্রমুখ নগর ও থানার নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, বিজাতীয় অপসংস্কৃতির মাধ্যমে দেশের যুব সমাজকে ধ্বংসের দিকে ধাবিত করা হচ্ছে। ভারতীয় টিভি চ্যানেলের আগ্রাসনে আমাদের সমাজ ও পরিবারের ভ্রাতৃত্বের বন্ধন আজ হুমকির মুখে। এ সকল চ্যানেল বন্ধ করা সচেতন জনগণের প্রাণের দাবিতে পরিণত হয়েছে।

অধ্যক্ষ মাও. শেখ ফজলে বারী মাসউদ বলেন, সংশোধিত সিলেবাস ও শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে নাস্তিক্যবাদী গোষ্ঠী নতুনভাবে চক্রান্ত শুরু করেছে। নাস্তিক্যবাদীদের যে কোন চক্রান্ত কঠোরহস্তে প্রতিহত করতে হবে। ৯২ ভাগ মুসলমানের চিন্তা চেতনা ভুলুন্ঠিত করে গুটিকয়েক বাম নাস্তিক-মুরতাদের মনোবাসনা অনুযায়ী শিক্ষানীতি ও পাঠ্যসুচি একটি মহল তৈরির ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। বিষয়টি অবশ্যই উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও উস্কানিমূলক। এই উস্কানিমূলক জঘন্য কাজ যারা করেছে ক্ষমতাসীনরা তাদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা না নিলে শুধু সরকারকেই নয়, গোটা জাতিকে এর মাশুল দিতে হবে। নেতৃবৃন্দ রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানের জন্য সরকারকে সকলপ্রকার কুটনৈতিক তৎপরতাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

সম্মেলন সমাপনকালে ২০১৬ সেশনের কমিটি বিলুপ্ত করে ২০১৭ সেশনের কমিটি  ঘোষণা করা হওয়।

সভাপতিঃ  জি এম বায়েজীদ, সহ সভাপতিঃ দেলোয়ার হোসেন ওও সাধারণ সম্পাদক পদে নূরুল ইসলাম এর নাম ঘোষণা করা হয়।

 

 

বার্তা প্রেরক:

মোহাম্মাদ মিজানুর রহমান

প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন ঢাকা মহানগর পশ্চিম।