সোমবার, ২০ মার্চ, ২০১৭

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান নামে উগ্রবাদী সংগঠন নিষিদ্ধ করতে হবে: অধ্যক্ষ ইউনুছ আহমাদ

আইএবি নিউজ: হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান আদিবাসী পার্টির ঘোষণা” মূর্তি বিরোধী আন্দোলনকারী মুসলমানদের প্রতিহত করা হবে-এ ধরণের উস্কানীমূলক বক্তব্য দিয়ে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা বাধাতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ।

আজ সোমবার (২০ মার্চ) সংবাদ মাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, মূর্তি মুসলমানের কোন সংস্কৃতি নয় বরং ইসলামবিরোধী। তাই মুসলমানরা মূর্তি অপসারণে আন্দোলন করবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু ৯৫ ভাগ মুসলমানদের কতিপয় উগ্র সংখ্যালঘু সম্প্রদায় এভাবে প্রতিহত করার ঘোষণা, হোলি উৎসবে হিজাবধারী নারীদের নাজেহালের ঘটনা একই সূঁতোয় গাথা।

“হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান আদিবাসী পাটি”সহ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী সিআর দত্তের সংগঠন “হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান সংগঠন” নিষিদ্ধ করতে হবে। মুসলমান দেশে এভাবে প্রকাশে হুমকি স্বাভাবিক নয়। তাদের খুটার জোর কোথায় খুঁজে বের করতে হবে। অন্যথায় সম্প্রীতি বজায় রাখার স্বার্থে মুসলমানরা নিরবে বসে থাকবে না।