বুধবার, ১২ এপ্রিল, ২০১৭

স্বীকৃতি ও মূর্তি অপসারণের ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন: পীর সাহেব চরমোনাই

আইএবি নিউজ: দেশের ওলামা-মাশায়েখ ও কওমী মাদরাসার ছাত্রদের দীর্ঘদিনের দাবি কওমী মাদরাসার সর্বোচ্চ ডিগ্রী দাওরায়ে হাদীস সনদের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি ও সুপ্রিমকোর্টের সামনে থেকে মূর্তি অপসারণের ঘোষণা দেয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন মোবারকবাদ জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

চরমোনাই পীর বলেন, দেশের একটি উল্লেখযোগ্য অংশ কওমী মাদরাসা শিক্ষায় শিক্ষিত। মাদরাসা শিক্ষায় শিক্ষিত এ শ্রেণিটি উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হলেও তাদের কোন রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি ছিল না। বিষয়টি নিয়ে অতীতে বিভিন্ন সরকার নোংরা রাজনীতি করেছে। কওমী ছাত্রদের তাদের অধিকার ও সম্মান থেকে বঞ্চিত করেছে। কওমী মাদরাসা শিক্ষা যে একটি প্রয়োজনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ মৌলিক শিক্ষা এ বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কওমী সনদের স্বীকৃতি দিয়ে সময়োপযোগি ও ঐতিহাসিক দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণার দ্রুত বাস্তবায়ন কামনা করেন।

বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে স্থাপিত গ্রিক দেবীর মূর্তি অপসারণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণাকেও সাধুবাদ জানান। তিনি মূর্তি অপসারণে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।