সোমবার, ১০ এপ্রিল, ২০১৭

চলমান জঙ্গীবাদের সাথে ইসলামের কোন সম্পর্ক নেই: ইশা ছাত্র আন্দোলন

আইএবি নিউজ: সোমবার (১০ এপ্রিল’১৭) ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি জি.এম. রুহুল আমীন-এর সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারি জেনারেল শেখ মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম-এর সঞ্চালনায় জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে “জঙ্গিবাদের স্বরূপ : কারণ ও প্রতিকার এবং আমাদের ভাবনা” শীর্ষক লোকবক্তৃতার আয়োজন করা হয়। উক্ত লোকবক্তৃতায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র শাইখ ফজলুল করীম মারুফ। প্রবন্ধের উপর আলোচনা অংশ নেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ড. আব্দুল লতিফ মাসুম, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম ও মহানগর উত্তরের সভাপতি হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে চলমান জঙ্গীবাদের সাথে ইসলামের কোন সম্পর্ক নেই। যারা বাংলাদেশে জঙ্গীবাদের সাথে জড়িত তারা ব্যক্তিগত জীবনে ইসলাম অনুসরণ করে না। ইসলাম প্রতিষ্ঠার জন্য গত সাড়ে ১৫শত বছর ধরে প্রতিষ্ঠিত পন্থাও তারা অনুসরণ করছে না। তারা ইসলামী দণ্ডবিধির অপপ্রয়োগ করে ইসলাম প্রতিষ্ঠার স্বীকৃত পন্থাকে বিকৃত করে নিজেদের মন মতো করে জঙ্গীবাদী কার্যক্রম পরিচালনা করছে। তাদের এই জঙ্গীবাদের লক্ষ্য উদ্দেশ্যও তারা কখনও স্পষ্ট করে বলেনি, কোন রূপরেখাও দেয়নি। তাই আমার এই জঙ্গীবাদের সাথে ইসলামের কোন সম্পর্ক খুঁজে পাচ্ছি না। একটি গোষ্ঠীর মধ্যে ইসলামের সঠিক শিক্ষা না থাকায় তারা এই ভয়ঙ্কর কার্যক্রমকে ইসলাম বলে চালিয়ে যাচ্ছে। অতএব আমরা মনে করি সুশাসনের অভাব, বাকস্বাধীনতার হরণ, কর্মসংস্থানের অভাবে বেকারত্ব, ইসলাম ধর্মীয় বিষয়াদী নিয়ে কটুক্তি এবং প্রতিবাদ করলে হামলা-মামলা, ইসলমী রাজনীতির পরিসর ছোট করে দেয়া, ইসলামী শিক্ষাকে সংকুচিত করা, ইসলামের দর্শন সম্পর্কে মানুষকে অনবহিত রাখার কারণেই দেশের বিপথগামী কিছু মানুষ সন্ত্রাসবাদের পথ বেছে নিচ্ছে। এই সন্ত্রাসবাদের কারণ ইসলাম প্রতিষ্ঠা নয়; বরং অভ্যন্তরীণ ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ।

বক্তারা আরও বলেন, আমরা বলতে চাই, সন্ত্রাসবাদ একটি সামাজিক সমস্যা। তাই সমাধানও সামাজিক পন্থা অবলম্বন করে করতে হবে এবং এ জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে সামাজিক সচেতনতা গড়ে তুলতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

উক্ত লোকবক্তৃতায় আরো উপস্থিত ছিলেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর জয়েন্ট সেক্রেটারি জেনারেল মুহা. হাছিবুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এস.এম. এমদাদুল্লাহ ফাহাদ, তথ্য গবেষণা ও প্রচার সম্পাদক মুহাম্মাদ ইলিয়াস হাসান, প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক এইচ এম কাওছার আহমেদ।