সোমবার, ১০ এপ্রিল, ২০১৭

পহেলা বৈশাখে মঙ্গল শোভাযাত্রা নামক বিজাতীয় সংস্কৃতি বয়কট করুন: ইশা ছাত্র আন্দোলন সিলেট জেলা

স্টাফ রিপোর্টার : পহেলা বৈশাখ উদযাপনের নামে ইসলাম ও সমাজ বিরোধী কার্যকলাপ জাতিকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছে। মঙ্গল প্রদীপ প্রজ¦লন ও মঙ্গল শোভাযাত্রা, নারী-পুরুষের সম্মিলিত নৃত্য, উন্মাদনা, গান, রং ছিটানো ইত্যাদি অনৈসলামিক কার্যকলাপ বন্ধের দাবি জানিয়েছেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন সিলেট জেলার সভাপতি সোহেল আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের মিসবাহ।

এক যৌথ বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, মঙ্গল শোভাযাত্রা হিন্দুধর্মের একটি ধর্মীয় উৎসব। একে বাঙালি সংস্কৃতি বলে সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের ওপর চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে এবং ইউনেস্কোর মত একটি আন্তর্জাতিক সংস্থার কাছে বাঙালি জাতির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উৎসব হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে। এভাবে যদি পশ্চিম বঙ্গের সংস্কৃতিকে বাঙালি সংস্কৃতি বলা হয় তবে স্বাধীন বাংলার মানচিত্রের কোন স্বাতন্ত্র্য থাকে না। আগামী পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে সরকার যেভাবে সারাদেশে মঙ্গল শোভাযাত্রা পালনের নির্দেশ দিয়েছে তা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সিলেটের মাটি শাহজালালের পুণ্যভূমি খ্যাত। এই মাটিতে শত শত ওলি আউলিয়া শায়িত। শত শত দ্বীনি মাদরাসা প্রতিষ্ঠিত। সিলেটের মানুষ ধর্মপ্রাণ। তাই সিলেটের মাটিতে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ¦লন ও মঙ্গল শোভাযাত্রা ধর্মপ্রাণ মুসলমান মেনে নিতে পারে না। নেতৃবৃন্দ পহেলা বৈশাখে মঙ্গল শোভাযাত্রা নামক অনৈসলামিক কার্যকলাপ বন্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।