সোমবার, ২৭ মার্চ, ২০১৭

ইশা ছাত্র আন্দোলন লক্ষীপুর জেলা শাখার স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

লক্ষ্মীপুর থেকে পারভেজ: গতকাল ২৬ মার্চ রোজ রবিবার সকাল ৯টায় ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জেলা সভাপতি মুহাম্মদ নোমান সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মু. নূরুল আলমের সঞ্চালনায় দক্ষিণ তেমুহনি জেলা কার্যালয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব অনারারি ক্যাপ্টেন (অব:) মু. ইব্রাহিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা মু. মাহবুবুর রহমান।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, ১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চ কালো রাতে অপারেশন সার্চলাইট নামে নিরীহ ঘুমন্ত বাঙ্গালির উপরে যে গণহত্যা চালিয়েছে তা ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায় হিসেবে রচিত হয়েছে। ২৬শে মার্চের সেই দীপ্ত শপথ পরবর্তীতে আমাদেরকে স্বধীনতা এনে দিয়েছে। দেশ স্বাধীন হয়েছে ঠিকই কিন্ত স্বধীনতার স্বপ্নসাধ এখনো পূরন হয়নি। আজও মানুষ খুন হচ্ছে, গুম হচ্ছে, এখনো আমার মা-বোন ধর্ষিত হচ্ছে, এজন্য কি এ দেশ স্বাধীন হয়ছে? যদি দেশে আবারও ত্রাসের রাজত্ব কয়েম হয় তাহলে আমরা হাত গুঁটিয়ে বসে থাকবো না। মাজলুম মানুষের কাঙ্ক্ষিত মুক্তির জন্য আরেকটি বিপ্লবের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

বিশেষ অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, আজ ভারতের সাথে যে প্রতিরক্ষা চুক্তির কথা শুনা যাচ্ছে যদি তা বাস্তবায়ন হয় তাহলে আমাদের সামরিক বাহিনীকে পঙ্গু করে দেওয়া হবে। এ স্বাধীন ভুখন্ডকে আরেকটি ''সিকিম'' বা ভারতের গোলাম বানানোর গভীর ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।  সুতারং ছাত্র সমাজকে আবারো ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল অপশক্তির কবর রচনা করতে হবে।

সভাপতি তার উদ্ভোধনী বক্তব্যে বলেন, চলমান প্রতিরক্ষা চুক্তি থেকে জনগনের দৃষ্টি এড়ানোর জন্য বিভিন্ন জায়গায় জঙ্গি হামলার ইস্যূ তৈরী করে সরকার ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টায় লিপ্ত। আলোচনা সভা ও র‍্যালীতে আরো উপস্থিত ছিলেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার সহ-সভাপতি মু. ইমরান হোসাইন, সাংগঠনিক সম্পাদক মু. রাশেদুল ইসলাম, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মু. মাঈন উদ্দিন চিশতী, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মু. ফারবেজ হোসাইন সহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।আমাদের শান্তিপূর্ণ দেশে জঙ্গি ইস্যূ তৈরী করে বিশ্বের দরবারে আমাদের দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার খেসারত সরকারকেই দিতে হবে।

আলোচনা শেষে দ.তেমুহনী চত্বর থেকে এক বিশাল র‍্যালী লক্ষ্মীপুর সামাদ মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। পরিশেষে স্বাধীনতা সংগ্রামে নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মুনাজাত করা হয়। ইশা ছাত্র আন্দোলন লক্ষীপুর জেলা শাখার স্বাধীনতা দিবস উদযাপন