শুক্রবার, ১৪ এপ্রিল, ২০১৭

ধর্মীয় শিক্ষার অভাবেই শিক্ষার্থীরা সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গীবাদ এবং অপসংস্কৃতির দিকে ধাবিত হচ্ছে: ইশা ছাত্র আন্দোলন

স্টাফ রিপোর্টার : ১৪ এপ্রিল রোজ শুক্রবার সকাল ৯.৩০ ঘটিকায় ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন ফতুল্লা থানা শাখা কর্তৃক আয়োজিত "শিক্ষকদের সাথে আলোচনা সভা ও স্কুল কেবিনেট সংবর্ধনা" অনুষ্ঠান পাগলা বাজার সংলগ্ন আই.এস.সি.এ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভার আলোচ্য বিষয় ছিলো "সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ দমনে আমাদের করণীয়"।

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন ফতুল্লা থানা শাখার সভাপতি আব্দুল্লাহ মুহাম্মদ হাসান এর সভাপতিত্বে উক্ত বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইশা ছাত্র আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুহা. শফিকুল ইসলাম।

প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ফতুল্লা থানা শাখার সভাপতি হযরত মাওলানা আনোয়ার হোসেন জিহাদী।

প্রধান অতিথির তার বক্তব্যে বলেন, ইসলামের নাম ব্যবহার করে কতিপয় নামধারীরা ইসলামকে বিতর্কিত করার জন্য সন্ত্রাসবাদ এবং জঙ্গীবাদকে ছড়িয়ে দিচ্ছে। কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এর শিক্ষার্থীরা ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা না পাবার কারণে অল্পতেই জঙ্গীবাদের দিকে আকৃষ্ট হচ্ছে। অভিভাবকদের এ দিকে প্রবলভাবে নজর দেয়া উচিত যেনো তাদের সন্তানরা ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা পেতে পারে। তিনি আরো বলেন, প্রকৃত ধর্মীয় শিক্ষা তথা ইসলামী শিক্ষার অভাবেই শিক্ষার্থীরা সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গীবাদ এবং অপসংস্কৃতির দিকে ধাবিত হচ্ছে।

মাওলানা জিহাদী বলেন, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন একটি মকবুল ছাত্র সংগঠন। মরহুম পীর সাহেব চরমোনাই রহ. ঘুনে ধরা ছাত্র সমাজকে দ্বীনের পথে ফিরিয়ে এনে ইসলামী শাসন প্রতিষ্ঠার মহান কাজকে আঞ্জাম দেয়ার উদ্দেশ্যে এই সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। সকল ছাত্রদের উচিত এই মুবারক কাফেলায় শরীক হয়ে নিজেকে ধন্য করা। তিনি বলেন, ইশা ছাত্র আন্দোলন কখনোই নাশকতা, অস্থিতিশীলতা এবং অপরাজনীতিতে বিশ্বাস করেনা।

সভাপতির বক্তব্যে আব্দুল্লাহ মুহাম্মদ হাসান বলেন, জ্ঞানচর্চা ও চিন্তাশীলতায় ইশা ছাত্র আন্দোলন এগিয়ে যাচ্ছে। সচেতন নাগরিকদের নিকট ইশা ছাত্র আন্দোলন গ্রহণযোগ্য হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। মঙ্গল শোভাযাত্রার ন্যায় রাষ্ট্রে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন অপসংস্কৃতি রোধে ইশা ছাত্র আন্দোলন বদ্ধপরিকর। তিনি আরো বলেন, ইসলামে সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গীবাদ এবং অপসংস্কৃতির কোনো স্থান নেই। নির্বাচিত কেবিনেটদের উদ্দেশ্যেও তিনি বিভিন্ন দিকনির্দেশনামূলক আলোচনা প্রদান করেন।

অবশেষে প্রধান বক্তার দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন ফতুল্লা থানা শাখা কর্তৃক আয়োজিত "শিক্ষকদের সাথে আলোচনা সভা ও স্কুল কেবিনেট সংবর্ধনা" অনুষ্ঠান সমাপ্ত হয়।